যোহন বাপ্তাইজকের প্রচার কাজ।
3
1 সেই সময়ে যোহন বাপ্তাইজক হাজির হয়ে যিহূদিয়ার প্রান্তরে প্রচার করতে লাগলেন; 2 তিনি বললেন, ‘মন ফেরাও, কারণ স্বর্গ-রাজ্য নিকটে।’ 3 ইনিই সেই ব্যক্তি, যাঁর বিষয়ে যিশাইয় ভাববাদীর মাধ্যমে এই কথা বলা হয়েছিল, “প্রান্তরে এক জনের রব; সে ঘোষণা করছে, তোমরা প্রভুর পথ তৈরী কর, তাঁর রাজপথ সব সরল কর।” 4 যোহন উটের লোমের কাপড় পরতেন, তাঁর কোমরে চামড়ার বেল্ট ও তাঁর খাবার পঙ্গপাল ও বনমধু ছিল। 5 তখন যিরুশালেমে, সমস্ত যিহূদিয়া এবং যর্দ্দনের কাছাকাছি সমস্ত অঞ্চলের লোক বের হয়ে তাঁর কাছে যেতে লাগল; 6 আর নিজের নিজের পাপ স্বীকার করে যর্দ্দন নদীতে তাঁর মাধ্যমে বাপ্তাইজিত হতে লাগল। 7 কিন্তু অনেক ফরীশী ও সদ্দূকী বাপ্তিস্মের জন্য আসছে দেখে তিনি তাদের বললেন, হে সাপের বংশেরা, আগামী কোপ থেকে পালাতে তোমাদের কে চেতনা দিল ? 8 অতএব মনপরিবর্ত্তনের যোগ্য ফলে ফলবান হও। 9 আর ভেবো না যে, তোমরা মনে মনে বলতে পার, অব্রাহাম আমাদের পিতা; কারণ আমি তোমাদের বলছি, ঈশ্বর এই সব পাথর থেকে অব্রাহামের জন্য সন্তান তৈরী করতে পারেন। 10 আর এখনই গাছ গুলির শিকড়ে কুড়াল লাগান আছে; অতএব যে কোন গাছে ভালো ফল ধরে না, তা কেটে আগুনে ফেলে দাও য়া যায়। 11 আমি তোমাদের মনপরিবর্ত্তনের জন্য জলে বাপ্তাইজ করছি ঠিকই, কিন্তু আমার পরে যিনি আসছেন, তিনি আমার থেকে শক্তিমান; আমি তাঁর জুতো বহন করারও যোগ্য নই; তিনি তোমাদের পবিত্র আত্মা ও আগুনে বাপ্তাইজ করবেন। 12 তাঁর কুলা তাঁর হাতে আছে, আর তিনি নিজের খামার সুপরিষ্কার করবেন এবং নিজের গম গোলায় সংগ্রহ করবেন, কিন্তু যে আগুন কখন নেভেনা সেই আগুনে তুষকে পুড়িয়ে দেবেন।
প্রভু যীশুর বাপ্তিস্ম ও পরীক্ষা।
13 সেইসময়ে যীশু যোহনের মাধ্যমে বাপ্তাইজিত হবার জন্য গালীল থেকে যর্দ্দনে তাঁর কাছে এলেন। 14 কিন্তু যোহন তাঁকে বারণ করতে লাগলেন, বললেন, আপনার মাধ্যমে আমারই বাপ্তাইজ হওয়া দরকার, আর আপনি আমার কাছে আসছেন? 15 কিন্তু যীশু উত্তর করে তাঁকে বললেন, এখন রাজি হও, কারণ এইভাবে সমস্ত ধার্মিক তা পরিপূর্ণ করা আমাদের উচিত। তখন তিনি তাঁর কথায় রাজি হলেন। 16 পরে যীশু বাপ্তাইজিত হয়ে অমনি জল থেকে উঠলেন; আর দেখ, তাঁর জন্য স্বর্গ খুলে গেল এবং তিনি ঈশ্বরের আত্মাকে পায়রার মত নেমে নিজের উপরে আসতে দেখলেন। 17 আর দেখ, স্বর্গ থেকে এই বাণী হল, “ইনিই আমার প্রিয় পুত্র, এতেই আমি সন্তুষ্ঠ।”